শ্বশুর বাড়িতে রানীর মত থাকে এই ৬ নামের মেয়েরা

শ্বশুর বাড়িতে রানীর মত থাকে এই ৬ নামের মেয়েরা – মেয়ে হলে জন্মালে নিয়তিই বলে দেয় আজ সে এক বাড়ির মেয়ে কাল সে কারুর ঘরের বউ। প্রত্যেক মেয়েকে একদিন আপন ঘর ছেড়ে শ্বশুরবাড়ি যেতে হয়, খাপ খাইয়ে নিতে হয় নতুন পরিবেশের সাথে। বাড়ি ঘর থেকে

শুরু করে আমুল বদলে যায় তার পরিবেশ। সেখানে স্বামী ছাড়াও রয়েছে শ্বশুর, শাশুড়ি, ননদ, দেয়র। তাই প্রত্যেকটি মেয়েই চায় যে বিয়ের পর শ্বশুর বাড়িতে সবাইকে নিয়ে সুখে শান্তিতে বসবাস করতে পারে। যদিও সবার কপালে সেই সুখ জোটে না। কিন্তু জ্যোতিষ শাস্ত্র বলছে এই

ছয় নামের মেয়েদের বিয়ের পর শ্বশুর বাড়িতে সুখে শান্তিতে থাকার সম্ভবনা অনেক বেশি থাকে। এই ছয় নামের মেয়েরা শ্বশুর বাড়ির সকলের মন জয় করে থাকেন।

চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক বিস্তারিত…

‘A’ নামের মেয়েরা ঃ- A নামের মেয়েদের মধ্যে প্রবল আত্মবিশ্বাস থাকে। যেকোনো কাজে উদ্যোগ নেবার ক্ষেত্রে এরা দারুন ভুমিকা পালন করে। তবে এদের চরিত্র একদম জলের মতন। যখন যে পাত্রে ঢালা হবে সে পাত্রেরই আকার ধারন করবে। তবে এরা খুবই সাহসী মানসিকতার লোক হন। সহজে এদের কেউ দমাতে পারে না। তাই শ্বশুর বাড়িতে এরা সুখে শান্তিতে বসবাস করতে পারেন।

‘D’ নামের মেয়েরা ঃ- D নামের মেয়েরা যেকোনো কাজে প্রচণ্ড পরিমাণে খাটাখাটনি করেন। নিজের চরিত্র গঠনে এরা করুর ওপর নির্ভর করেন না, তাই এদের চরিত্রে নিজস্বতা প্রকাশ পায়। শ্বশুর বাড়ির প্রতি এদের যথেষ্ট টান থাকে। তাই পরিবারের প্রত্যেকটি সদস্যদের কাছে এরা গ্রহণযোগ্যতা পান। ফলে শ্বশুর বাড়ির লোকেদের ভালোবাসার পাত্র হয়ে ওঠেন এরা। প্রেম ও সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য D নামের মেয়েরা অনেক দূর পর্যন্ত যেতে পারেন।

‘M’ নামের মেয়েরা ঃ- M নামের মেয়েদের জুরি মেলা ভার। এরা মুলত কাজ নিয়ে থাকতে ভালোবাসেন। জীবন সম্পর্কে এদের দৃষ্টিভঙ্গি অনেক সহজ সরল হয়। সাধারণত খুব একটা জটিল ভাবে এরা কিছু ভাবেন না। সততা এদের মধ্যে প্রবল, এরা নিজের কাজ ও পরিবারের বন্ধুবান্ধবদের প্রতি যথেষ্ট সৎ। তাই শ্বশুর বাড়িতে সকলের মন সহজেই জয় করে ফেলেন M নামের মেয়েরা।

‘S’ নামের মেয়েরা ঃ- যে সকল মেয়েদের নাম S দিয়ে শুরু তারা নতুন কিছু করার বিষয়ে উদ্যোগী হন। এদের ইচ্ছা শক্তির দ্বারা সমস্ত বাধা বিপত্তি এরা জয় করে নিতে পারেন। বিয়ের ক্ষেত্রে এই নামের মেয়েরা খুবই ভালো ও নির্ভরযোগ্য। স্ত্রী বা প্রেমিকা হিসাবে এরা বিশ্বস্ত হন। ফলে শ্বশুর বাড়িতে সকলকে নিয়ে আনুন্দে জীবন কাটান S নামের মেয়েরা।

‘P’ নামের মেয়েরা ঃ- P নামের মেয়েরা খবুই জ্ঞ্যানি হন। যেকোনো বিষয়ে তাদের সেখার ইচ্ছা প্রবল। যেকোনো বিষয়ে তারা ঠাণ্ডা মাথায় ভেবে শান্তিতে কাজ করেন। নিজের সমস্ত রকমের বুদ্ধি দিয়ে এরা বিষয় গুলোর বিচার বিবেচনা করেন। যার ফলে শ্বশুর বাড়িতে কোন রকম ঝামেলায় পরতে হয় না তাদের। নিজের মতন করে শ্বশুর বাড়িতে জীবন কাটাতে পারেন এরা।

‘R’ নামের মেয়েরা ঃ- যে সকল মেয়েদের নাম R অক্ষর দিয়ে শুরু তারা খুবই স্বচ্ছশীল হন। জ্ঞ্যানের ক্ষেত্রে বিচার করতে এদের ভালো লাগে। জ্ঞ্যান যেহেতু অনেক বেশি তাই কূটনৈতিক বোধও এদের মধ্যে তুমুল, যা তাদের বিপদ আপদে সাহায্য করে। পরিবারের আনুন্দ শান্তির জন্য নিজেদের সমস্ত কিছু ত্যাগ করতে রাজি হয়ে যান এরা। যার ফলে পরিবার ও গৃহস্তে সুখি হন R নামের মেয়েরা।

Check Also

গরমে ‘ফিট এন্ড ফাইন’ থাকতে পাতে রাখুন এই সবজি

গরমে ‘ফিট এন্ড ফাইন’ থাকতে পাতে রাখুন এই সবজি – খাবার পাতে তেঁতো (Bitter) দেখলেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page