Home / News / পান পাতায় রয়েছে আশ্চর্যজনক কয়েকটি গুনাগুন

পান পাতায় রয়েছে আশ্চর্যজনক কয়েকটি গুনাগুন

পান পাতায় রয়েছে আশ্চর্যজনক কয়েকটি গুনাগুন – পান পাতা ছাড়া কোন অনুষ্ঠানই সম্পূর্ণ হয় না। বিয়ে থেকে শুরু করে পুজোতেও কাজে লাগে এই ‘ভালোবাসার’ পাতাটি। সবথেকে বড় ব্যাপার হল খাবার খাওয়ার শেষে পান না খেলে যেন তৃপ্তিই আসে না। শুধু তাই নয় আয়ুর্বেদ

শাস্ত্র মতে এটি স্বাস্থ্যের জন্য বিশেষ উপকারী। অনেকেই পান পাতা খেয়ে থাকেন, কেউ অভ্যাসগত আবার কেউ স্বাস্থ্য উপকারিতার কথা ভেবে। দেহের স্নায়ু দুর্বলতা থেকে শুরু করে ক্লান্তি ও খাবার হজম হতে সাহায্য করে। এমনকি এটি কয়েকটি মারণ রোগকে আমাদের থেকে

দূরে রাখে। চলুন পান পাতার উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক – পানে আছে স্বাস্থ্য গুনাগুন, বাড়ে যৌ’নশক্তি ১) পান পাতা হজমের জন্য বিশেষ উপকারী। আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে বলা হয়েছে, আহার গ্রহণের পরে পান পাতা খেলে হজমশক্তি বাড়িয়ে তোলে এবং এটি

শরীরের পক্ষে ভালো। ২) পান পাতা চিবানোর পরে যে লালা নিঃসৃত হয় তার এনজাইম খাবারকে হজম করতে সাহায্য করে। ৩) পান পাতায় রয়েছে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান যা ঠান্ডা জনিত যে সকল সমস্যাগুলি হয় তা দূর করে। এটি মধুর সাথে মিশিয়ে খেলে তা গলার

ইনফেকশন দূর করে। ৪) মুখের ভিতরে দুর্গন্ধ দূর করতে পান পাতার কোনো জুড়ি নেই। এটি চিবানোর সময় মুখের ভিতর এমন একটি উপাদান উৎপন্ন হয় যা ওরাল ব্যাকটেরিয়া রোধ করে এবং শরীরের পিএইচ ভারসাম্য বজায় রাখে। ৫) আয়ুর্বেদ শাস্ত্র মতে নিয়মিত পান খেলে

ভয়াবহ রোগ ক্যান্সারের আশঙ্কা অনেকটাই কমে যায়। ৬) পান পাতায় পলিফেনাল নামে এমন এক ধরনের উপাদান রয়েছে যা ব্যথা বা যন্ত্রণা কমাতে সাহায্য করে। তাই অনেকেই জয়েন্টের ব্যথা কমানোর জন্য পান পাতা খেয়ে থাকেন। ৭) আমরা আগেই জেনেছি পান পাতা হজম

শক্তি বৃদ্ধি করে শুধু তাই নয় এটি শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থগুলিকেও দূর করে। ৮) এটি শরীর থেকে মেটাবলিজম বৃদ্ধি করে এবং পানের ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্যের মত সমস্যাকেও দূর করে। এছাড়া এটি শরীরের মেদ ঝরিয়ে ওজন-হ্রাস করে। ৯) আয়ুর্বেদ শাস্ত্র মতে, বৈবাহিক জীবনে দুর্বলতা দেখা গেলে পান পাতা তা দূরে করে এবং দাম্পত্য জীবনকে আরও মধুময় করে তোলে।

Check Also

তাইওয়ান এ মাছের জাক এই খান থেকে তাজা মাছ অবিনব পদ্ধতিতে রান্না করে পরিবেশন করে যা দেখতে খুবই মনোমুগ্ধকর তুমুল ভাইরাল ভিডিও

সোস্যাল মিডিয়ায় এখন আশ্চর্যজনক ঘটনা দিলেই ভাইরাল হয়ে যায়। এখনকার যুগে প্রতিনিয়ত ভালো, খারাপ দুটোই ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *