Home / Education / একসাথে ২৫টি স্কুলে পড়িয়ে শিক্ষিকার বছরে আয় ১ কোটি টাকা

একসাথে ২৫টি স্কুলে পড়িয়ে শিক্ষিকার বছরে আয় ১ কোটি টাকা

একসাথে ২৫ টি স্কুলে পড়িয়ে বছরে ১ কোটি টাকা আয়ের নজির গড়লেন এক শিক্ষিকা। আর এই ঘটনা সামনে আসতেই তাজ্জব হয়ে যায় গোটা দেশ।

আর এই ঘটনা সামনে আসতেই অ’ভিযু’ক্ত শিক্ষিকার বি’রুদ্ধে ত’দন্ত শুরু করেছে সরকার।

ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে। যে শিক্ষিকার বি’রুদ্ধে এই অ’ভিযোগ উঠেছে তিনি কস্তুরবা গান্ধী বালিকা বিদ্যালয়ের একজন ফুলটাইম শিক্ষিকা। কিন্তু সম্প্রতি জানা যায় তিনি ওই স্কুল ছাড়াও আরও ২৪ টি স্কুলের শিক্ষিকা হিসেবে নিযু’ক্ত।

যে শিক্ষিকার বি’রুদ্ধে এমন অ’ভিযোগ তিনি হলেন অনামিকা শুক্লা। উত্তরপ্রদেশের প্রাথমিক শিক্ষা দপ্তরের সূত্র অনুযায়ী জানা গিয়েছে, বর্তমানে রাজ্যের শিক্ষক ও শিক্ষিকাদের ডিজিটাল ডাটাবেস তৈরি করার কাজ শুরু।

আর এই কাজ চালানোর সময় জানা যায় ওই শিক্ষিকা একাধিক স্কুলে শিক্ষকতার সাথে নিযু’ক্ত। কস্তুরবা গান্ধী বালিকা বিদ্যালয়ের পূর্ণ সময়ের শিক্ষিকা হওয়া ছাড়াও তিনি আ’মেঠি, আম্বেদনগর, প্রয়াগরাজ, আলীগড় সহ একাধিক জে’লার স্কুলেও পড়াতেন।

একাধিক স্কুলে পড়িয়ে তিনি শেষ ১৩ মাসে এক কোটি টাকা উপার্জন করেছেন বলেও জানা গিয়েছে। আর এই ঘটনা সামনে আসতেই উত্তরপ্রদেশের প্রাথমিক শিক্ষা দপ্তর ওই শিক্ষিকাকে একটি নোটিশ পাঠায়। যদিও সেই নোটিশের কোন উত্তর এখনও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি বলেও জানা যায়।

শিক্ষা দপ্তরের তরফ থেকে ওই শিক্ষিকাকে নোটিশ পাঠানোর পাশাপাশি আপাতত তার বেতন আ’ট’কে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি শিক্ষা দপ্তরের তরফ থেকে খতিয়ে দেখা হচ্ছে ওই শিক্ষিকার একই অ্যাকাউন্ট থেকে সমস্ত স্কুলের বেতন তুলতেন কিনা।

এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে উত্তরপ্রদেশের প্রাথমিক শিক্ষা মন্ত্রী ডঃ সতীশ দ্বিবেদী জানিয়েছেন, “ইতিমধ্যেই ওই শিক্ষিকার বি’রুদ্ধে ত’দন্ত শুরু করেছে শিক্ষা দপ্তর। যদি অ’ভিযোগ সত্য প্রমাণিত হয় তাহলে উপযু’ক্ত শা’স্তি পাবেন ওই শিক্ষিকা। শিক্ষা ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা আনার জন্যই এই ডিজিটাল ডাটাবেস তৈরি করা হচ্ছে।”

Check Also

মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হাঁড়ি-পাতিল বেচে মে’য়েকে বিসিএস ক্যাডার বানালেন বাবা

বিরেণ সরকার। নিজের এক টুকরো জমি নেই। নেই বসতবাড়ি। একটি ভাড়া বাড়িতে থাকেন। গ্রামে গ্রামে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *