Home / News / এই মাসেও অ্যাকাউন্টে ঢুকবে না গ্যাসের ভর্তুকির টাকা, জানুন কেন

এই মাসেও অ্যাকাউন্টে ঢুকবে না গ্যাসের ভর্তুকির টাকা, জানুন কেন

Copy

একধাক্কায় রান্নার গ্যাস বাড়ছে তো আবার কমছে এই নিয়েই নাজেহাল মধ্যবিত্ত। করোনার মহাসঙ্কট, তার উপর আবার লকডাউনে ফের হেঁশেলে কোপ পড়ল মধ্যবিত্তের। গত ৪ মাসের গ্যাসের ভতুর্কি আপানার ব্যাঙ্কে পৌঁছায় নি। আসল মহামারীর দাপটে সব খেয়াল বন্ধ হয়েছে আমজনতার। কিন্তু জেনে রাখুন ২০২০-র মে মাস থেকে ব্যাঙ্কে ঢুকছে না গ্যাসের ভতুর্কির টাকা। শুধু তাই নয়, চলতি মাসেও রান্নার গ্যাসে মিলবে না গ্যাসের ভর্তুকি। কিন্তু জানেন কেন এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জেনে নিন বিশদে।

করোনা আবহে লকডাউন নিয়ে নাজেহাল মধ্যবিত্ত। কারোরই কোনওদিকে খেয়াল নেই। এই মহামারী থেকে কীভাবে বাঁচা যায় তা নিয়ে মরিয়া। এর মধ্যেই রান্নার গ্যাসের ভর্তুকি বন্ধ হয়েছে মে মাস থেকে।

করোনা আবহে লকডাউন নিয়ে নাজেহাল মধ্যবিত্ত। কারোরই কোনওদিকে খেয়াল নেই। এই মহামারী থেকে কীভাবে বাঁচা যায় তা নিয়ে মরিয়া। এর মধ্যেই রান্নার গ্যাসের ভর্তুকি বন্ধ হয়েছে মে মাস থেকে।

২০২০ সালের মে মাস থেকেই ব্যাঙ্কে আসছে না ভতুর্কির টাকা। পরপর একটানা ৪ মাস সেই ভর্তুকির টাকা কারোরই ব্যাঙ্কে ঢোকেনি।

২০২০ সালের মে মাস থেকেই ব্যাঙ্কে আসছে না ভতুর্কির টাকা। পরপর একটানা ৪ মাস সেই ভর্তুকির টাকা কারোরই ব্যাঙ্কে ঢোকেনি।

গ্যাসের ভতুর্কি নিয়েই এবার বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র সরকার, আর যার ফলেই ব্যাঙ্কে ঢোকা বন্ধ হয়েছে ভর্তুকির। আন্তর্জাতিক বাজারে এপ্রিল মাসে দাম অনেকটাই পড়ে গিয়েছিল এলপিজি গ্যাসের।

গ্যাসের ভতুর্কি নিয়েই এবার বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র সরকার, আর যার ফলেই ব্যাঙ্কে ঢোকা বন্ধ হয়েছে ভর্তুকির। আন্তর্জাতিক বাজারে এপ্রিল মাসে দাম অনেকটাই পড়ে গিয়েছিল এলপিজি গ্যাসের।

এলপিজি গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম কমে যাওয়াতেই ভর্তুকিযুক্ত এবং ভর্তুকিহীন গ্যাসের দাম এক হয়েছিল। সেপ্টেম্বর মাসেও গ্যাসের দামে কোনও রদবদল হয়নি।

এলপিজি গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম কমে যাওয়াতেই ভর্তুকিযুক্ত এবং ভর্তুকিহীন গ্যাসের দাম এক হয়েছিল। সেপ্টেম্বর মাসেও গ্যাসের দামে কোনও রদবদল হয়নি।

গত ১ বছর ধরেই রান্নার গ্যাসের ভর্তুকি কমানো হয়েছে। প্রতি সিলিন্ডার প্রতি ভর্তুকিও কম দিতে হয়েছে সরকারকে।

গত ১ বছর ধরেই রান্নার গ্যাসের ভর্তুকি কমানো হয়েছে। প্রতি সিলিন্ডার প্রতি ভর্তুকিও কম দিতে হয়েছে সরকারকে।

১৪.২ কেজি এলপিজি সিলিন্ডারের দাম ছিল ৬৩৭ টাকা। যা কমে দাঁড়িয়েছে ৫৮১ টাকা ৫০ পয়সা। সূত্র থেকে জানা গেছে, এলপিজি সিলিন্ডারের দাম বদল করার সময়ই গ্যাসের সাবসিডি বন্ধ করে দেওয়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

১৪.২ কেজি এলপিজি সিলিন্ডারের দাম ছিল ৬৩৭ টাকা। যা কমে দাঁড়িয়েছে ৫৮১ টাকা ৫০ পয়সা। সূত্র থেকে জানা গেছে, এলপিজি সিলিন্ডারের দাম বদল করার সময়ই গ্যাসের সাবসিডি বন্ধ করে দেওয়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

এর কারণেই মে, জুন, জুলাই, আগস্ট মাসে গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার হয়নি।

এর কারণেই মে, জুন, জুলাই, আগস্ট মাসে গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার হয়নি।

সেই বাজার দাম মূল্য অনুযায়ী অনেকটা কম হওয়াতে সরকার এখন প্রয়োজনীয় ভর্তুকি দিতে হচ্ছে না।

সেই বাজার দাম মূল্য অনুযায়ী অনেকটা কম হওয়াতে সরকার এখন প্রয়োজনীয় ভর্তুকি দিতে হচ্ছে না।

নির্দিষ্ট মূল্যের বেশি হলেই সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে ভর্তুকির ব্যবস্থা করে সরকার। কিন্তু সেই দাম যদি কমে যায়, তাহলে আর ভর্তুকির প্রয়োজন হয় না। এই কারণেই মে মাস থেকেই রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি দিচ্ছে না সরকার।

নির্দিষ্ট মূল্যের বেশি হলেই সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে ভর্তুকির ব্যবস্থা করে সরকার। কিন্তু সেই দাম যদি কমে যায়, তাহলে আর ভর্তুকির প্রয়োজন হয় না। এই কারণেই মে মাস থেকেই রান্নার গ্যাসে ভর্তুকি দিচ্ছে না সরকার।

Check Also

অবিশ্বাস্য ঘটনা মঙ্গলের মাটিতে তারের কুণ্ডলী!

Copy মঙ্গল গ্রহে অদ্ভুত এক প্যাঁচানো বস্তুর দেখা পেয়েছেন নাসার বিজ্ঞানীরা। গ্রহটিতে প্রাণের অস্তিত্ব খুঁজতে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *