Home / News / আত্মনির্ভর ভারতের শুরু বাংলা থেকেই, ভারতীয় রেলের হাতে উচ্চগতির তেজস তুলে দিল চিত্তরঞ্জন

আত্মনির্ভর ভারতের শুরু বাংলা থেকেই, ভারতীয় রেলের হাতে উচ্চগতির তেজস তুলে দিল চিত্তরঞ্জন

ভারতীয় রেল (indian railway) আত্মনির্ভরতার দিকে আরো এক কদম এগিয়ে গেল। আর এই যাত্রা শুরু হল বাংলার রেল ইঞ্জিন কারখানা চিত্তরঞ্জন থেকেই। শুক্রবার ভারতীয় রেলের হাতে তেজস এক্সপ্রেস লোকোমোটিভসের প্রথম ব্যাচকে তুলে দিল চিত্তরঞ্জন।

সম্পূর্ণ ভাবে ভারতীয় প্রযুক্তিতে নির্মিত এই তেজস। আসানসোল রেল স্টেশন থেকেই সূচনা হল এই অত্যাধুনিক ইঞ্জিনের। রেল মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল এই তেজস নির্মাণকে ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রকল্পের বড় সাফল্য বলে অভিহিত করেছেন৷

৬ হাজার হর্স পাওয়ারের (অশ্বশক্তি) এই তেজস ভারতের যে কোনো আধুনিক ইঞ্জিনকে টেক্কা দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। এই ‘এরোডায়নামিক’ ইঞ্জিন। যা আলাদা জেনারেটর ছাড়াই ট্রেনের কামরা গুলিতে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ পরিষেবা দেবে।

এটি ভারতের প্রথম ‘পুশ পুল’ প্রযুক্তিতে তৈরি ইঞ্জিন।‘পুশ-পুল’ প্রযুক্তি অত্যন্ত দ্রুত গতিতে চলার সময় ইঞ্জিনে বায়ুর যে আঘার লাগে, তা অনেকটাই কমে আসবে। যার ফলে দ্রুত গতিতে দৌড়ানোর সময় সেই ইঞ্জিন স্থিতিশীল থাকবে এবং শক্তির খরচ বাঁচবে। পাশাপাশি সহজেই বাতাস কাটিয়ে সামনের দিকে এগিযে যেতে পারবে।

রাজধানী সহ যে কোনো প্রিমিয়াম ট্রেনের সময় এই ইঞ্জিন ৯০ মিনিট পর্যন্ত কমিয়ে দিতে পারবে। পাশাপাশি এই ইঞ্জিন শব্দ ও বায়ুদূষণ অনেকটাই কমিয়ে আনবে। এই ইঞ্জিনের সাথে অতিরিক্ত কামরা জোড়ার সুবিধা যাত্রীদের যেমন খুশি করবে তেমনই বাড়বে রেলের আয়ও।

Check Also

তাইওয়ান এ মাছের জাক এই খান থেকে তাজা মাছ অবিনব পদ্ধতিতে রান্না করে পরিবেশন করে যা দেখতে খুবই মনোমুগ্ধকর তুমুল ভাইরাল ভিডিও

সোস্যাল মিডিয়ায় এখন আশ্চর্যজনক ঘটনা দিলেই ভাইরাল হয়ে যায়। এখনকার যুগে প্রতিনিয়ত ভালো, খারাপ দুটোই ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *